বাংলাদেশকে আফগানদের হারানোর উপায় দেখাল জিম্বাবুয়ে

৭১ রান করে আউট হয়ে গেছেন মাসাকাদজা, কিন্তু দলের জয় ততক্ষণে নিশ্চিত হয়ে গেছে। ছবি: প্রথম আলো

আপনার সংবাদঃ আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে জিততে ভুলে গেছে বাংলাদেশ। টানা চার ম্যাচে হেরেছে বাংলাদেশ। ইতিহাস কীভাবে বদলে দিতে হয় সেটা দেখিয়ে দিল জিম্বাবুয়ে। এই আফগানিস্তানের বিপক্ষেই টানা ৮ ম্যাচ হেরেছিল জিম্বাবুয়ে। আজ আফগানদেরই ৭ উইকেটে হারিয়ে সে ধারায় বাঁধ সাধল জিম্বাবুয়ে। ৩ বল থাকতে পাওয়া এ জয়ে হ্যামিল্টন মাসাকাদজাও পেলেন সম্ভাব্য সেরা বিদায়ী উপহার।

উপহারটা কে কাকে দিয়েছে, এ নিয়ে আলোচনা হতে পারে। মাসাকাদজার বিদায়ী ম্যাচে জয় পেয়েছে জিম্বাবুয়ে, আবার সে জয়টা এনে দিয়েছেন মাসাকাদজা নিজেই। মাসাকাদজার সাহসী এক ইনিংসে টি-টোয়েন্টিতে প্রায় ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যাওয়া আফগানিস্তান আজ মাটিতে নেমে এল। সে সঙ্গে স্বাগতিক বাংলাদেশ নতুন করে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠল। যাক, আফগানিস্তানকে তাহলে চেষ্টা করলে হারানো যায়!

ম্যাচ জিততে ১৯.৩ ওভার খেলেছে জিম্বাবুয়ে। এতে মনে হতে পারে ম্যাচের শেষ পর্যন্ত উত্তেজনা ছিল। কিন্তু মাসাকাদজার সুবাদে ম্যাচটা আসলে এক পেশে হয়ে গেছে বহু আগেই। বরং একপর্যায়ে নিজের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের শেষটাও সেঞ্চুরি দিয়ে করতে পারেন কি না মাসাকাদজা সে আগ্রহও জেগেছিল। দলের শেষ ৪৬ রানের দুই-ত্রিতীয়াংশ তুললেই সেটা হয়ে যেত। কিন্তু নিজের দশম বাউন্ডারি মারতে গিয়ে ৭১ রানেই থেমে গেছেন মাসাকাদজা। ইনিংসের বাকি তখনো ৪৩ বল।

ম্যাচ নিয়ে আগ্রহ এর আগেই শেষ। ১৫৬ রানের লক্ষ্যে নেমে প্রথম দুই বলেই চার ও ছয় মেরেছেন ব্র্যান্ডন টেলর। একটু পরে রান উৎসবে যোগ দিয়েছেন মাসাকাদজা। দলকে ৪০ রানে রেখে টেলর (১৯) আউট হওয়ার পর দায়িত্ব পুরাটা নিজের কাঁধে নিয়েছেন মাসাকাদজা। মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খানদের প্রাধান্য বিস্তার করার কোনো সুযোগই দেননি। চার ও ছক্কা মেরে বোলিং আক্রমণ থেকে সরিয়ে দিয়েছেন কিছুক্ষণ পরেই। ১২তম ওভারেই তাই এক শ পেরিয়ে গেছে জিম্বাবুয়ে। শেষ ৮ ওভারে বল প্রতি ১ রান দরকার ছিল তাদের। ৪ চার ও ৫ ছক্কায় ৪২ বলে ৭১ রানের ইনিংস খেলে নিজের বিদায়ী উপহার নিশ্চিত করেছেন মাসাকাদজা।

রেগিস চাকাভা (৩৯) জিম্বাবুয়েকে পথ হারাতে দেননি। ১৮তম ওভারের প্রথম বলে চাকাভা আউট হওয়ায় একটু আশা জেগেছিল আফগানিস্তানের। পরের বলে মুজীব উর রহমান শন উইলিয়ামসের ক্যাচটা ধরতে পারলে ম্যাচটা শেষ দিকে জমেও উঠতে পারত। কিন্তু নিজের বলে সহজ ক্যাচ ধরতে পারেননি মুজীব। পরের তিন বলে ১০ রান তুলে উইলিয়ামস তার যোগ্য শাস্তি দিয়েছেন মুজীবকে।

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে নামা আফগানিস্তান উড়ন্ত শুরু করেছিল। ৮ ওভারে ৭৫ রান তুলে ফেলেছিল দলটি। রহমানউল্লাহ গুরবাজ (৬১) ও হজরুতউল্লাহ জাজাইয়ের (৩১) উদ্বোধনী জুটি ৮৩ রান এনে দেওয়ার পরই অবশ্য ধস নেমেছে আফগানিস্তান ইনিংসে। ৪১ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলা দলটি শেষ দিকেও ঝড় তুলতে না পারায় ৮ উইকেটে ১৫৫ রানে থামে আফগানিস্তান।

সুত্রঃ প্রথম আলো

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *